চালককে কুপিয়ে হত্যা রাজশাহীতে ভ্যানের যাত্রীকে বেঁধে

চালককে কুপিয়ে হত্যা রাজশাহীতে ভ্যানের যাত্রীকে বেঁধে |

চালককে কুপিয়ে হত্যা রাজশাহীতে ভ্যানের যাত্রীকে বেঁধে |রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলায় ভ্যানের যাত্রীকে বেঁধে রেখে ভ্যানচালককে কুপিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। আজ রোববার ভোরে উপজেলা জিউপাড়া ইউনিয়নের গাঁওপাড়া বাজার এলাকায় ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়কের পাশে এ ঘটনা ঘটে।নিহত ভ্যানচালকের নাম কুদ্দুস আলী ওরফে কালু (৩৫)। তাঁর বাড়ি রাজশাহী চারঘাট উপজেলার নন্দনগাছ গ্রামে। আর বেঁধে রাখা ভ্যানের যাত্রীর নাম আবদুল আওয়াল (৫৫)। তিনি সবজি ব্যবসায়ী। তাঁর বাড়ি পুঠিয়া উপজেলা সদরের কান্দ্রা গ্রামে।

সবজি বিক্রেতা আবদুল আওয়াল বলেন, তিনি পুঠিয়া রাজবাড়ী বাজারে সবজির ব্যবসা করেন। প্রতিদিন ভোরে বিভিন্ন বাজার থেকে সবজি কিনে আনেন। ভ্যানচালক কুদ্দুস আলীকে নিয়ে আজ ভোরে নাটোরের তেবাড়িয়া হাটে যাচ্ছিলেন। গাঁওপাড়া বাজারের কাছে পৌঁছালে তিনজন অপরিচিত লোক তাঁদের গতি রোধ করেন। এ সময় দুর্বৃত্তরা ধারালো অস্ত্র দেখিয়ে তাঁদের দুজনকে সড়কের পাশের একটি ফাঁকা জমিতে নিয়ে যান। সেখানে তাঁকে (আবদুল আওয়ালকে) বেঁধে রেখে ভ্যানচালক কুদ্দুস আলীকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। আওয়াল আরও বলেন, ‘তাঁরা আমার কাছে থাকা সবজি কেনার ৪ হাজার ৫০০ টাকা নিয়ে নেয়। এ সময় আমি কান্নাকাটি শুরু করলে তাঁরা আমার প্রাণ ভিক্ষা দিয়ে হাত-পা বেঁধে রেখে চলে যায়।নয়ন আলী নামের এক ব্যক্তি বলেন, আজ সকালে মহাসড়কের পাশ দিয়ে হাঁটছিলেন। এ সময় মহাসড়কের পাশ থেকে মানুষের কান্নার আওয়াজ পান। কাছে গিয়ে দেখেন একজনকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে এবং অপরজনের হাত-পা বাঁধা। পরে তিনি বিষয়টি পুলিশকে জানান।

পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফারুক হোসেন বলেন, ঘটনাস্থলে ছুরি পড়ে থাকতে দেখা গেছে। আলামত উদ্ধারে সিআইডিকে ডাকা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের শনাক্ত করতে সবজি বিক্রেতাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

Spread the love