Monday, December 4, 2023
Home Blog

Ronaldo makes history as Brazil join the party

0

Lorem Ipsum is simply dummy text of the printing and typesetting industry. Lorem Ipsum has been the industry’s standard dummy text ever since the 1500s, when an unknown printer took a galley of type and scrambled it to make a type specimen book. It has survived not only five centuries, but also the leap into electronic typesetting, remaining essentially unchanged. It was popularised in the 1960s with the release of Letraset sheets containing Lorem

রজনীকান্ত অমিতাভ ৩২ বছর পর একসঙ্গে

রজনীকান্ত অমিতাভ ৩২ বছর পর একসঙ্গে | ১৭০তম ছবিটি করতে চলেছেন দক্ষিণি মেগাস্টার রজনীকান্ত। এ ছবিটি আরও বিশেষ হয়ে উঠবে বলিউড মেগাস্টার অমিতাভ বচ্চনের আবির্ভাবে। জানা গেছে, এই দুই মেগাস্টার একসঙ্গে এবার বড় পর্দা কাঁপাবেন ক্যারিয়ারের | এর আগে বেশ কিছু ছবিতে একসঙ্গে দেখা গেছে রজনীকান্ত ও অমিতাভকে। তাঁরা একসঙ্গে এসেছেন ‘হম’, ‘অন্ধাকানুন’ ও ‘গ্রেপ্তার’ ছবিতে। ভারতীয় গণমাধ্যম ই–টাইমসের খবর অনুযায়ী |

রজনীকান্তের নাম ঠিক না হওয়া ছবির অন্যতম মূল আকর্ষণ হতে চলেছেন ‘বিগ বি’।এ ব্যাপারে ছবির নির্মাতারা তাঁর সঙ্গে কথাবার্তা বলছেন। খুব শিগগিরই এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করবেন নির্মাতারা। টি জে জ্ঞানবেল পরিচালিত ছবিটি সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত হতে চলেছে। আর রজনীকান্তকে এক মুসলিম পুলিশ অফিসারের চরিত্রে দেখা যাবে।

সিটাডেল এর জন্য অভিনেত্রী পারিশ্রমিক দ্বিগুণ করেছেন সামান্থা

সিটাডেল এর জন্য অভিনেত্রী পারিশ্রমিক দ্বিগুণ করেছেন সামান্থা |  ১০-১৫ কোটি রুপি পারিশ্রমিক পেয়ে থাকেন। তবে দক্ষিণ ভারতে অবস্থা তেমন নয়। জনপ্রিয় নায়কদের পারিশ্রমিক হিন্দি সিনেমার প্রথম সারির অভিনেত্রীদের প্রায় সবাই আকাশচুম্বী হলেও নায়িকারা পান ৩ থেকে ৭ কোটি রুপি। জনপ্রিয় দক্ষিণি অভিনেত্রী সামান্থা রুথ প্রভুর পারিশ্রমিক ছিল পাঁচ কোটি, তবে নতুন হিন্দি সিরিজের জন্য দ্বিগুণ পারিশ্রমিক পাচ্ছেন ‘দ্য ফ্যামিলি ম্যান’ অভিনেত্রী।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার‘দ্য ফ্যামিলি ম্যান’-এর দ্বিতীয় মৌসুমে রাজির চরিত্রে অভিনয় করে ভারতজুড়ে জনপ্রিয়তা পান সামান্থা।

সিরিজটিতে সামান্থার সঙ্গে অভিনয় করেছেন বরুণ ধাওয়ান
সিরিজটিতে সামান্থার সঙ্গে অভিনয় করেছেন বরুণ ধাওয়ান

সিরিজটির পরিচালক ছিলেন রাজ ও ডিকে। এই নির্মাতাদ্বয়ের পরের সিরিজ ‘সিটাডেল’-এর ভারতীয় সংস্করণেও আছেন সামান্থা। জানা গেছে, সিরিজটির জন্য ১০ কোটি রুপি পারিশ্রমিক পেয়েছেন।

সিটাডেল’-এর শুটিংয়ের ছবি নিয়মিতই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করেন সামান্থা

অভিনেত্রী সামান্থা
অভিনেত্রী সামান্থা

সিরিজটি মুক্তির দিন এখনো চূড়ান্ত হয়নিভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে অভিনেত্রীর একটি সূত্র এ তথ্য জানিয়েছে। কিছুদিন আগেই প্রচার হয়েছে রুশো ভ্রাতৃদ্বয়ের ‘সিটাডেল’। জানা গেছে, রাজ ও ডিকের ‘সিটাডেল’ আগেরটির রিমেক নয়। ভারতীয় সংস্করণের সিরিজটিতে নতুন গল্প বলবেন পরিচালক। সিরিজটিতে সামান্থার সঙ্গে অভিনয় করেছেন বরুণ ধাওয়ান। অভিনেতার জন্য এটিই হতে যাচ্ছে প্রথম ওয়েব সিরিজে অভিনয়

আবার নিরব ও স্পর্শিয়া প্রথমটি মুক্তির আগেই

আবার নিরব ও স্পর্শিয়া প্রথমটি মুক্তির আগেই | চলচ্চিত্রের পর্দায় জুটি হয়ে আসছেন নিরব ও স্পর্শিয়া। এরই মধ্যে ‘ফিরে দেখা’ নামের সেই ছবির প্রচারণাও শুরু হয়েছে। প্রথম ছবি মুক্তির আগে নতুন আরেক ছবিতে চুক্তির খবর দিলেন এই জুটি। জানালেন, ‘সুস্বাগতম’ নামের এই ছবিতে গত সপ্তাহে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তাঁরা।১৬ জুন প্রথমবার নিবরের সঙ্গে আবারও জুটি প্রসঙ্গে স্পর্শিয়া বলেন, ‘নিরবের সঙ্গে এর আগে যে কাজটি করেছি, ভালোই হয়েছে। আমাদের দুজনের একটা কাজের অভিজ্ঞতাও চমৎকার।

তাই নতুন কাজে আমাদের বোঝাপড়া আরেকটু সহজ হবে। তা ছাড়া ছবির প্রযোজক ও পরিচালক আবারও একসঙ্গে আমাদের কাজের সুযোগ তৈরি করে দিয়েছেন। সুস্বাগতম’ ছবিটা প্রেমের হলেও একজন মেয়ের বিমানের পাইলট হওয়ার স্বপ্নকে ঘিরে এগিয়ে যায় ছবির গল্প। যে গল্প শহর ও গ্রাম থেকে উঠে এসেছে। ছবিটিতে দুই সময়ের দুটি চরিত্রে অভিনয় করবেন স্পর্শিয়া। চরিত্র দুটির নাম রহিমন ও করিমন।ছবিতে হাসান চরিত্রে অভিনয় করছেন নিরব। ২৫ বছর আগে রহিমনের সঙ্গে হাসানের প্রেম থেকে বিয়ে হয়। সেই ঘরেই করিমনের জন্ম হয়। পরবর্তী সময়ে বাবার চরিত্রে দেখা যাবে তাঁকে। শুরুতে যুবক, গল্পের শেষে

বয়স্ক—এক ছবিতে দুটি চরিত্রে নতুন অভিজ্ঞতা হবে বলে জানালেন নিরব। তিনি বলেন, ‘আগে কখনো দুই বয়সের চরিত্রে কাজ করিনি। পুরোদমে শুটিং শুরুর আগে তাই বয়স্ক চরিত্র নিয়ে অনুশীলনের ব্যাপার আছে।’পরিচালক শফিকুল আলম জানিয়েছেন, আগামী জুলাই মাসে ঢাকা ও রাজবাড়ীর লোকেশনে শুটিং শুরু হবে ‘সুস্বাগতম’ ছবিরস্পর্শিয়া বলেন, ‘২৫ বছর আগের রহিমন আর ২৫ বছর পরের রহিমনের মেয়ে করিমন চরিত্রে আমাকে অভিনয় করতে হবে। মজার ব্যাপার, দুই সময়েরই যুবতী চরিত্রে দেখা যাবে আমাকে। ২৫ বছর আগের চরিত্রটি, অর্থাৎ বৃদ্ধ রহিমনকে আর গল্পের শেষে দেখানো হয় না। সুতরাং মা-মেয়ের চেহারার কোনো পরিবর্তন থাকে না। এর ফলে দুটি চরিত্রে কাজ করা অনেকটাই সহজ হবে।’

চুলের যত্নে সিক্রেট অয়েল ঘন ও লম্বা

 চুলের যত্নে সিক্রেট অয়েল ঘন ও লম্বা | নারী সৌন্দর্যের অন্যতম হল ঘন স্বাস্থ্যোজ্জ্বল চুল। কিন্তু আবহাওয়ার রেডিকাল চেঞ্জ ও শারীরিক সমস্যাসহ নানাবিধ কারণেই দিন দিন চুল পাতলা এবং দুর্বল হয়ে পড়ে। তবে সঠিক যত্নের মাধ্যমেও কিন্তু চুলের সুস্বাস্থ্য ধরে রাখা সম্ভব। এসবের জন্য অবশ্যই চাই এক্সপার্টের পরামর্শ! হ্যা, আজ চুলের যত্নে সচারাচর আপনার মনে যেসব প্রশ্ন জাগে এবং যার উত্তর হয়ত খুঁজে পাননি এখন সেসব প্রশ্নের উত্তর নিয়ে  হাজির হয়েছেন।

 

 ১। স্বাস্থ্যজ্জ্বোল চুলের গোপন রহস্য কী?স্বাস্থ্যজ্জ্বোল চুল এর জন্য অন্যতম গোপন রহস্য হচ্ছে পরিমিত সুষম খাদ্যভ্যাস অর্থাৎ চা-কফি কম পান করা এবং তাজা ফলের রস পান করা ও কাঁচা সবজির নির্যাস এবং দুগ্ধজাত পণ্য গ্রহণ করা। এছাড়াও প্রচুর পরিমানে পানি পান করা উচিত যা আপনার ত্বক ও স্ক্যাল্পকে হাইড্রেটেড রাখে।

 চুলের যত্নে সিক্রেট অয়েল ঘন ও লম্বা
চুলের যত্নে সিক্রেট অয়েল ঘন ও লম্বা

২।  চুলে কতক্ষন তেল দিয়ে রাখা উচিত?চুলে কতক্ষণ তেল দিয়ে রাখবেন, এই সময়টুকু নির্ভর করে আপনার ব্যক্তিগত চুলের পুষ্টির চাহিদা এর উপর। যাদের চুল শুষ্ক  বা বর্ষাকালে যাদের চুলে জট লেগে যায়, তাদের সারা রাত চুলে তেল দিয়ে রাখা উচিত, যদি সম্ভব হয় । বালিশে যাতে তেল না লাগে, এজন্য চুলে বাথ ক্যাপ ব্যবহার অথবা চুল তোয়ালে দিয়ে ঢেকে রাখতে পারেন। পরের দিন সকালে মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। যাদের চুল তেলতেলে তাদের জন্য চুলে নারিকেল তেল দিয়ে ১ অথবা ২ ঘণ্টা রাখাই যথেষ্ট কারণ এই সময়ের ভেতরেই স্ক্যাল্প প্রয়োজনীয় পুষ্টি শুষে নেবে এবং চুল দেখাবে স্বাস্থ্যজ্জ্বোল ও মসৃণ। সবচেয়ে ভালো ফলাফলের জন্য চুলে সপ্তাহে অন্তঃত তিনবার নারিকেল তেল দেওয়া উচিত।

৩। চুলে তেল দেওয়ার পূর্বে গরম করার তাৎপর্য কী?চুলে তেল দেওয়ার পূর্বে তেল গরম করে নিলে চুলের জন্য এটি চমৎকার সুফল বয়ে আনবে এবং বিভিন্ন সমস্যা যেমন খুশকি, স্ক্যাল্পের শুষ্কতা এবং ক্ষতিগ্রস্থ চুলের নিরাময় হিসেবে কাজ করবে। তেলকে কুসুম গরম করে নিলে স্ক্যাল্প তেল আরও ভালোভাবে শুষে নিবে যার দরুণ চুলে আরও ভালোভাবে পুষ্টি যোগাবে । আপনার চুল হয়ে উঠবে সম্পূর্ণরূপে স্বর্গীয় ও চমৎকার ।

 ৪। বর্ষাকাল চলে এসেছে। চুলের যত্নে এই বর্ষাকালে কী করা জরুরি?আমরা যতই ঝিরি ঝিরি বৃষ্টির ফোটা, জমে থাকা পানিতে দাপাদাপি, কুঁড়মুড়ে পাকোড়া এবং মসলা চায়ে চুমুক দেয়া পছন্দ করি না কেন; চুলের জন্য বর্ষাকাল মোটেও সুখকর নয়। বৃষ্টি এলেই আপনার চুল কোঁকড়া এবং এলোমেলো হয়ে যায়। এ সময় নারিকেল তেলের ম্যাসাজ প্রাকৃতিক কন্ডিশনার হিসাবে কাজ করে এবং চুলের প্রয়োজনীয় পুষ্টি যোগায়  যা আপনার চুল রাখে পরিপাটি ও স্বাস্থ্যজ্জ্বোল। আপনার চুল যখনই বৃষ্টিতে ভিজে যাবে তখনই মাইল্ড শ্যাম্পু এবং কন্ডিশনার ব্যবহার করে চুল ধুয়ে ফেলুন। বর্ষাকাল ছোট স্টাইলিশ চুল রাখার জন্য সবচেয়ে ভালো সময়।

৫। কেউ কেউ পরামর্শ দেন বিভিন্ন রকম তেলের (জলপাই, বাদাম, নারিকেল) মিশ্রণ ব্যবহারের, আবার কেউ কেউ পরামর্শ দেন একটি তেল ব্যবহার করাই ভালো। আপনার পরামর্শ কী?অনেক বছরের অভিজ্ঞতা থেকে আমি জেনেছি যে, নারিকেল তেল-ই চুলের জন্য সবচেয়ে উৎকৃষ্ট। চুলে নারিকেল তেল দিলে স্ক্যাল্পের ময়েশ্চার বৃদ্ধি প্রায় ১২% এরও বেশী যা স্ক্যাল্পের চামড়া উঠা এবং চুলকানো বন্ধ করে। নারিকেল তেলের ম্যাসাজ মাথার রক্ত প্রবাহ বৃদ্ধি করে এবং নিশ্চিত করে স্বাস্থ্যজ্জ্বোল চুল ও চুলের  পর্যাপ্ত ময়েশ্চারের মাত্রা। চুল ধোয়ার পূর্বে নারিকেল তেলের ম্যাসাজ চুলের প্রোটিন হ্রাসের পরিমান  প্রায় ২৮% পর্যন্ত কমিয়ে দেয়। নারিকেল তেলের ম্যাসাজ চুলের সকল সমস্যা নিরাময় করার নিশ্চিত উপায় এবং দেয় অপূর্ব  সুন্দর চুলের আলিঙ্গন।

স্কিনে অয়েল ও ওয়াটারের ব্যালেন্স কীভাবে ঠিক রাখা যায়

স্কিনে অয়েল ও ওয়াটারের ব্যালেন্স কীভাবে ঠিক রাখা যায় |  ময়েশ্চারাইজাইং, সিরাম অ্যাপ্লাই ইত্যাদি। ত্বকের ধরন অনুযায়ী স্কিনের জন্য নানা কিছু করছেন। কিন্তু সবকিছু করার মূলে আসলে কাজ করে স্কিনের অয়েল ও ওয়াটার। এই দুটোর ব্যালেন্স যদি ঠিক না থাকে তাহলে যত কিছুই করা হোক না কেন লাভ হবে না। বুঝতেই পারছেন আজ আমি কথা বলতে যাচ্ছি স্কিনের অয়েল ও ওয়াটার নিয়ে। ভাবছেন আমি মুখে তেল পানি লাগাতে বলছি? একদম না। বরং এই দুটি উপাদান যদি স্কিনে ইমব্যালেন্সড থাকে তাহলে হতে পারে বেশ কিছু সমস্যা। আজ জানাবো স্কিন অয়েল ও ওয়াটারের ব্যালেন্স ঠিক না থাকলে কী কী সমস্যা হতে পারে এবং কীভাবে এই দু’টোর ব্যালেন্স করবেন সে সম্পর্কে।

 স্কিনে অয়েল ও ওয়াটারের ব্যালেন্স কীভাবে ঠিক রাখা যায়
ত্বকের ধরন বোঝা কেন জরুরি?

প্রথমে বুঝতে হবে আপনার স্কিন কী ধরনের। অনেকের মনে একটা ভুল ধারণা আছে যে অয়েলি স্কিনে ময়েশ্চারাইজার অ্যাপ্লাই করতে হয় না। এটা একদম ভুল। কারণ  স্কিনে না লাগালে সেটা আরও বেশি সেবাম তৈরি করে স্কিনকে আরও বেশি অয়েলি করে তুলবে। আবার অনেকে ড্রাই স্কিনে এমন ময়েশ্চারাইজার অ্যাপ্লাই করেন, যেটাতে স্কিন ভালোভাবে ময়েশ্চারাইজড ও হাইড্রেটেড হয় না।

ত্বকে ন্যাচারালি তেল তৈরি হয়। আর পানির পরিমাণ নির্ধারিত হয় আপনি কী পরিমাণ লিকুইড ইনটেক করছেন এবং আরও কিছু পারিপার্শ্বিক জিনিসের উপর। ত্বকে তেল তৈরি হয় মূলত স্কিনকে বাইরের ড্যামেজ থেকে রক্ষা করার জন্য। অনেক সময় এই কারণে অনেক ড্রাই স্কিন এর মানুষ মনে করেন তাদের স্কিন অয়েলি এবং সেই কারণে ঘন ঘন ব্যবহার করে মুখ পরিষ্কার করেন, ফলে ত্বকের ন্যাচারাল অয়েল লেভেল নষ্ট হয়ে যায় এবং স্কিন খসখসে দেখায়।

 স্কিনে অয়েল ও ওয়াটারের ব্যালেন্স কীভাবে ঠিক রাখা যায়
স্কিনে এক্সেস অয়েল কেন তৈরি হয়?

আমাদের স্কিনে এক্সেস অয়েল প্রোডিউস হওয়ার পেছনে কিছু কারণ আছে। সেগুলো হচ্ছে-

আনহেলদি লাইফস্টাইল

অতিরিক্ত ব্যায়াম এবং ঘুমের অনিয়মের কারণেও অতিরিক্ত সেবামের নিঃসরণ ঘটে। তাই ত্বকে  এর পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে হলে পরিমিত ব্যায়াম এবং পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুম দরকার। স্ট্রেসের কারণে শরীরে হোয়াইট ব্লাড সেল কাউন্ট কমে যায় বলে সেটা স্বাস্থ্যের ওপর প্রভাব ফেলে। স্কিনের সারফেস অনেক সেনসিটিভ হয়ে যায় এবং সহজেই ইরিটেশন হয়। আর ইরিটেশন স্কিনের তেলের নিঃসরণ বাড়ায়।

অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস

বেশিরভাগ মানুষের স্কিন প্রবলেমের পিছনে অন্যতম কারণ থাকে অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস। যদি তেলে ভাজা, অতিরিক্ত মশলাদার খাবার বেশি খাওয়া হয় সেক্ষেত্রে স্কিনের প্রবলেম সারানো খুব মুশকিল হয়ে যায়।

স্কিনে অয়েল ও ওয়াটারের ব্যালেন্স কীভাবে ঠিক রাখা যায় |
ভিটামিনের অভাব

শরীরে ভিটামিন বি কমপ্লেক্স, ই ও এ এর অভাব হলে স্কিন রাফ হয়ে যেতে পারে। তাই আপনার যদি স্কিন টেক্সচার আনহেলদি মনে হয়, তাহলে একবার ডায়েট চার্ট চেক করে দেখুন সেখানে পর্যাপ্ত পরিমাণে পুষ্টি উপাদান আছে কিনা।

স্কিনে অয়েল ও ওয়াটারের ব্যালেন্স ঠিক আছে তো?

ফেইসে একনে দেখা দিলেই আমরা অভিযোগ করে বসি, প্রোডাক্টে নিশ্চয়ই কোনো সমস্যা ছিল! অথচ একবারও ভাবি না যে এই সমস্যা হতে পারে স্কিনে অয়েল ও ওয়াটারের ব্যালেন্স ঠিক না থাকলেও। কীভাবে বুঝবেন এই দুটো উপাদানের ব্যালেন্স ঠিক নেই? চলুন জেনে নেয়া যাক-

১) স্কিন সারফেসে ওয়াটার ও অয়েলের ইমব্যালেন্স হলে সেখানে স্কিন কনসার্নের জন্য দায়ী ব্যাকটেরিয়া বাসা বাঁধে এবং খুব স্বাভাবিকভাবেই একনে তৈরি হয়। সেজন্য ত্বক পরিষ্কার রাখা জরুরি। আপনি রেগুলার যে ফেইসওয়াশটি ইউজ করছেন সেটি pH ব্যালেন্সড তো এবং আপনার স্কিন থেকে প্রোপারলি এক্সেস সেবাম ক্লিন করছে তো?

২) আরেকটি কমন প্রবলেম হল  ব্লক হয়ে যাওয়া। স্কিনের অতিরিক্ত সেবামের সাথে ইমপিওরিটিস ও ডার্ট মিক্স হয়ে পোরসকে ব্লক করে দেয়। এ থেকেই দেখা দেয় বাম্পস, একনে, র‍্যাশের মতো স্কিন প্রবলেম। এ কারণে স্কিনের অয়েল ব্যালেন্স যদি ঠিক না থাকে তাহলে পোরস ক্লগের মতো স্কিন কনসার্ন খুব সহজেই দেখা দেয়।

৩) আমরা যখন গরমে ঘামি তখন আমাদের ফেইসে এক্সেস ওয়াটার প্রোডিউস হতে থাকে। যদি অল্প সময়ের মধ্যে এই ঘাম মুছে ফেলা না হয়, তাহলে ফেইসের অয়েল ও ওয়াটারের ইমব্যালেন্স হয়। আর তখন বাইরের পল্যুশন, ডার্ট এর সাথে ঘাম মিশে দেখা দিতে পারে একনে প্রবলেম।

এই ব্যালেন্স ঠিক রাখা যায় যেভাবে  

অয়েলি স্কিনে অয়েলের পরিমাণ বেশি হয় এটা তো আমরা জানি। আবার এটাও সত্যি যে, যদি ওয়াটারের সাথে অয়েলের ব্যালেন্স ঠিক না থাকে, বা কমবেশি হয় তাহলে স্কিন প্রবলেম দেখা দিতে পারে। চলুন জেনে নেই কীভাবে এই ব্যালেন্স ঠিক রাখা যায়-

১) সঠিক ক্লেনজার ব্যবহার করা

ক্লেনজিং এর সময় খেয়াল রাখতে হবে যে সঠিক ক্লেনজার ব্যবহার করা হচ্ছে কিনা, ক্লেনজারের উপকরণ কী কী, দিনে কয়বার মুখ ধুচ্ছেন, কোন ধরনের স্কিনের জন্য ফর্মুলেটেড, ক্লেনজারটি পিএইচ ব্যালেন্সড কিনা। কেননা ক্লেনজার বেশি ব্যবহার করলে বা ক্লেনজারের উপাদান হার্শ হলে ত্বকে আরও বেশি সেবাম নিঃসরণ হয় এবং স্কিনের পোরস ব্লক হয়ে একনের সৃষ্টি করে। আমাদের ত্বকে কিছু ভালো ব্যাকটেরিয়া প্রোডিউস হয়, যেগুলো স্কিন ব্যারিয়ার প্রোটেক্ট করে এবং স্কিনের পিএইচ লেভেল ব্যালেন্সড রাখে। তাই ওভার ওয়াশ করা যাবে না। অয়েলি স্কিনের যত্নে সপ্তাহে ২/৩ দিন স্যালিসাইলিক অ্যাসিড বেইজড ক্লেনজার স্কিন কেয়ার রুটিনে অ্যাড করুন।

চুলের যত্ন নেওয়ার ৫টি সেরা টিপসআজ থেকেই ফলো করুন

চুলের যত্ন নেওয়ার ৫টি সেরা টিপসআজ থেকেই ফলো করুন  |ঘন কালো ঢেউ খেলানো মখমল চুলের অধিকারী হতে কে না চায়? তবে ত্বকের তুলনায় চুলের যত্ন নেওয়াটা কঠিন। সারাদিন অফিস বা অন্যান্য কাজে ব্যস্ত থাকায় চুলের যত্ন অনেকসময় নেওয়া হয় না। ফলে চুলের নানান সমস্যা দেখা দেওয়া কোনও অস্বাভাবিক ঘটনা নয়। অনেকের ধারণা রাতের বেলায় চুলের যত্নের রুটিন মেনে চললে চুলের অনেক ক্ষতি হয়। একেবারেই ভুল ধারণা। শোওয়ার আগে ত্বক বা চুলের য্তন নেওয়া একেবারেই আবশ্যিক। বাউন্সি বা সিল্কি বা চকচকে, কোঁকড়ানো- যে কোনও ধরনের চুলের জন্য সবচেয়ে সেরা সময় হল রাতের বেলা। ঘুমের আগে যে যে জরুরি টিপস নেওয়া দরকার, তা জেনে নিন  চুলের যত্ন নেওয়ার সেরা সময় হল রাতের বেলা ৫টি সেরা টিপস আজ থেকেই ফলো করুন :

1.তেল বা সিরাম ব্যবহার করুন

চুলের যত্নের অপরিহার্য অংশগুলির মধ্যে একটি হল চুলের জটগুলিতে তেল প্রয়োগ করা। তেল আসলে একটি ময়শ্চারাইজিং এজেন্ট হিসাবে কাজ করে। চুলকে নরম এবং চকচকে রাখতেও সাহায্য করে। আপনার পছন্দের যে কোনও তেল লাগাতে পারেন এবং কয়েক মিনিটের জন্য আপনার মাথার ত্বকে ম্যাসাজ করতে পারেন। তারপর চুল বেঁধে নিয়ে ভাল ঘুম দিন। রাতে তুলে তেল দিলে চুলের গোড়া মজবুত হয়। চকচকে এবং নরম চুল পেতে আপনি পরের দিন সকালে আপনার চুল শ্যাম্পু করে নিতে পারেন। আপনি যদি আপনার মাথার ত্বকে তেল দিতে পছন্দ না করেন তবে আপনি একটি সিরাম ব্যবহার করতে পারেন।

2. চুলকে রক্ষা করতে বিছানায় বা বালিশে

চুলকে রক্ষা করতে বিছানায় বা বালিশে মাথা রাখার আগে মাথায় ভাল করে সুতির কাপড় বেঁধে নিতে পারেন। তাতে চুল পড়া ও গোড়া আলগা হয়ে যায় না। চুলে বিনুনি বা বেঁধে কাপড় দিলে সবচেয়ে ভাল হয়।

3. নোংরা চুল নিয়ে কখনও শোবেন না

নিয়িমত চুল ধোওয়া এড়িয়ে চলেন তাহলে মাথার ত্বকের ছিদ্রগুলি ধীরে ধীরে বুজে যেতে পারে। মাথার ত্বককে দুর্বল করে দেয়। এছাড়া খুশকি, চুল পড়ার মতো সমস্যাগুলিও দেখা যায়। তাই প্রতি রাতে চুল ধুয়ে তবেই শুতে যাবেন।

4. স্যাঁতসেঁতে বা ভেজা চুলে ঘুমানো এড়িয়ে চলুন

স্যাঁতসেঁতে বা ভেজা চুল নিয়ে কখনও শুতে যাবেন না। এর কারণে চুলে তাড়াতাড়ি ফাটল ধরা পড়ে। হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করে চুল শুকিয়ে নিতে পারেন।

5. ঘুমানোর আগে চুল ভাল করে আঁচড়ে নিন

ঘুমানোর আগে চুল আঁচড়ে সুন্দর করে বেঁধে নিন। এই কাজটি থেচুলকে সুস্থ ওয়ে কোনও  সমস্যা  রক্ষা করে। চুল আঁচড়ালে চুলের জট খুলে যায়, পরিস্কার হয়ে যায় ও মাথার ত্বকে রক্ত সঞ্চালন বাড়িয়ে তোলে। এছাড়া স্বাস্থ্যকর চুলের বৃদ্ধিও ঘটায়।

এবার বিদ্রূপ নিয়ে মুখ খুললেন আশিস বিদ্যার্থী ৫৭ বছর বয়সে বিয়ে

এবার বিদ্রূপ নিয়ে মুখ খুললেন আশিস বিদ্যার্থী ৫৭ বছর বয়সে বিয়ে | ভারতের জনপ্রিয় অভিনেতা আশিস বিদ্যার্থী গত ২৫ মে বিয়ে করেন | বন্ধুবান্ধব ও আত্মীয়দের উপস্থিতিতে ২৫ মে কলকাতার একটি ক্লাবে আসামের মেয়ে রুপালি বড়ুয়ার সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন ৫৭ বছর বয়সী এই অভিনেতা। তাঁরা আইনিমতে বিয়ে করেন। এটি তাঁর দ্বিতীয় বিয়ে। ৫৭ বছর বয়সে আবার বিয়ে করা নিয়ে আশিসকে লক্ষ্যবস্তুকে করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শুরু হয় ব্যঙ্গ-বিদ্রূপ।

এবার বিষয়টি নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেতা। খবর ইন্ডিয়া টুডের |বলিউডের এই অভিনেতাকে বাংলা সিনেমায়ও দেখা গেছে। ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এই অভিনেতাকে বেশির ভাগ সময় খলচরিত্রে দেখা গেছে। বাংলা হিন্দি ও দক্ষিণ ভারতের বিভিন্ন ভাষার সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। জানা গেছে তিনি এবার বিদ্রূপ নিয়ে মুখ খুললেন আশিস বিদ্যার্থী এবার বিদ্রূপ নিয়ে মুখ খুললেন আশিস বিদ্যার্থী তাঁর অভিনীত সিনেমার সংখ্যা তিন শতাধিক।

তিন পদের পরীক্ষার সূচি প্রকাশ দুটি ব্যাংক ও একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানের

তিন পদের পরীক্ষার সূচি প্রকাশ দুটি ব্যাংক ও একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানের | ২০২০ সালভিত্তিক জনতা ব্যাংক লিমিটেডে সিনিয়র অফিসার প্রকৌশল লেদার টেকনোলজি রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের রাকাব ডাটা কন্ট্রোল সুপারভাইজার ও ইনভেস্টমেট করপোরেশন অব বাংলাদেশের আইসিবি লাইব্রেরিয়ান পদের লিখিত পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ করা হয়েছে।ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির তত্ত্বাবধানে এই তিন ব্যাংকের তিনটি পদে অনলাইনে আবেদনকারী যোগ্য প্রার্থীদের ২ ঘণ্টার ২০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা ১০ জুন শনিবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। রাজধানীর মিরপুর ২ নম্বরে বিআইবিএম কেন্দ্রে এ পরীক্ষা নেওয়া হবে।

ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস আজ

ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস আজ | ১৯৬৬ সালের ৫-৬ ফেব্রুয়ারি লাহোরে অনুষ্ঠিত বিরোধী দলগুলোর সম্মেলনে যোগদান করেন শেখ মুজিবুর রহমান। সেখানে তিনি সংবাদ সম্মেলন করে পূর্ব পাকিস্তানের জনগণের অধিকার রক্ষার জন্য ৬ দফা দাবি তুলে ধরেন।পূর্ব বাংলার জনগণের প্রতি পাকিস্তান রাষ্ট্রের চরম বৈষম্যমূলক আচরণ ও অবহেলার বিরুদ্ধে আন্দোলন-সংগ্রাম তাৎপর্য লাভ করে ৬ দফার স্বায়ত্তশাসনের দাবির মধ্যে |

লাশ হলেন বাবা-ছেলে জানাজা থেকে ফেরার পাবনা

লাশ হলেন বাবা-ছেলে জানাজা থেকে ফেরার পাবনা |এক আত্মীয়ের জানাজা শেষে বাড়িতে ফেরার পথে সিএনজিচালিত অটোরিকশার সঙ্গে ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে দেড় বছর বয়সী সন্তানসহ এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার রাতে পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার দাশুড়িয়া ইউনিয়নের তেঁতুলতলা এলাকায় পাবনা ঈশ্বরদী মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।নিহত ব্যক্তিরা হলেন রাজশাহীর বাঘা উপজেলার চাঁদপুর গ্রামের মাহবুবুর রহমান ৪০ ও তাঁর দেড় বছর বয়সী ছেলে আবদুর রহমান।